src='https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js'/> Tecno Mobile কেনা উচিৎ কি উচিৎ না?

Tecno Mobile কেনা উচিৎ কি উচিৎ না?

Tecno Mobile কেনা উচিৎ কি উচিৎ না
Tecno Mobile কেনা উচিৎ কি উচিৎ না

Tecno Mobile আমাদের দেশের স্মার্টফোন বাজারে অল্প সময়ে জনপ্রিয়তা পাওয়া স্মার্টফোন ব্রান্ড। মিড বাজারের স্মার্টফোন মার্কেট খুব অল্প সময়ে Tecno Mobile তাদের দখলে নিতে সক্ষম হয়েছে। যারা টেকনো মোবাইল কেনার কথা ভেবেছেন তারা আজকের আর্টিকেলটি পড়তে পারেন।

স্মার্টফোব বাজারে মিড বাজেট স্মার্টফোন মার্কেটে কম্পিটিশন বেশি। মিড বাজেটে বাজারে টেকন সহ টেকনোর সহোদর ব্রান্ড ইনফিনিক্স ও আইটেল আছে। পাশাপাশি এগারো হাজারের নিচে বাজেটে সিম্ফনি ও ওয়াল্টন রয়েছে। বাজারে বারো হাজার থেকে শুরু করে আঠারো হাজার পর্যন্ত টেকনোর বেশ কয়েকটি মডেলের ফোন এভেইলেবল আছে। এই বাজেট সেগমেন্টে শাওমি,পকো ও রিয়েলমির ফোন আছে কিন্তু সেটা সিরিজ সংখ্যায় কম। Tecno Mobile ব্রান্ডটি মূলত বাজারের মিড বাজেটের ক্রেতাদের টার্গেট করে ফোন বানাচ্ছে।

টেকনো আপনাকে এই অল্প বাজেটে যা দিবে সেগুলো হলো, বিশাল সাইজের ডিসপ্লে, অধিক র‍্যাম রম, শক্তিশালী ব্যাটারি, বেশি ক্যামেরা, অধিক ফিচার।
কিন্তু টেকনো আপনাকে যা দিবেনা সেগুলো হলো, বিশাল সাইজের ব্যাটারি দিবে ঠিকই দিবে কিন্তু ফোনটিকে দ্রুত চার্জ করার জন্য পর্যাপ্ত ফাস্ট চার্জার দিবেনা। যে চার্জার দিবে সেটি দিয়ে চার্জ দিতে অনেক সময় নিবে।
টেকনো বাজেটে বিশাল সাইজের ডিসপ্লে দিবে কিন্তু ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে দিবেনা।
টেকনো বিলাশ সাইজের ডিসপ্লে দিবে কিন্তু ডিসপ্লের সাথে সমানেসমান মিলে যায় এমন গ্লাস প্রোটেকশন দিবেনা।
টেকনো অনেক বেশি র‍্যাম রম দিবে কিন্তু ভালোমানের প্রসেসর দিবেনা। যে বাজেটে টেকনো মিডিয়াটেক এ২৫ দেয়,একই বাজেটে রিয়েলমি স্নাপড্রাগনের প্রসেসর দেয়।

সুতরাং রেগুলার ব্যাবহার করার জন্য টেকনোর ফোন ভালো চয়েজ হতে পারে। যদি আপনি ভালো ফটোগ্রাফি করতে চান, ভালো গেমার হোন, তাহলে এখানে টেকনো আপনাকে ভোগান্তিতে ফেলবে।  এছাড়া টেকনোর ফোন সাইজে ও ওজনে তুলনামূলক বেশি হয়। ফলে যারা ফোন নিয়ে বেশিরভাগ সময় বাসার বাহিরে থাকে, তাদেরকে টেকনো ভোগাবে।

টেকনো যেটা করে, তারা অনেক বেশি র‍্যাম রম দেয় একইসাথে প্রসেসর দেয় বাজেট অনুপাতে বাজারে একই বাজেটে অন্য ফোনের সাথে তুলনা করলে নিন্মমানের। টেকনোর মোবাইলে চার্জার নিয়ে অনেকের অভিযোগ থাকে। ব্যাটারি দেয় বিশাল কিন্তু চার্জ হতে প্রচুর সময় নয়। তবে টেকনোর ১৫/১৬ হাজার টাকার বেশি বাজেটের ফোনগুলো আবার ভালো। সেগুলা নিয়ে অভিযোগ কম। যদিও বাজেট বিবেচনায় সেই বাজেটে আরো ভালো স্পেসিফিকেশনে ফোন বাজারে আছে।
আপনি যদি নরমাল ব্যাবহারকারী হোন। কোনপ্রকার গেমিং করার ইচ্ছে না থাকে বা ক্যামেরায় ফটোগ্রাফি করার ইচ্ছে না থাকে, তাহলে টেকনোর ফোন কিনতে পারেন।

আশাকরি আমাদের আজকের এই আর্টিকেল থেকে আপনার যে তথ্য জানার প্রয়োজন ছিল সেটি জানতে পেরেছেন। কোন জানার বা মন্তব্য থাকলে মন্তব্য করতে পারেন। স্মার্টফোন বিষয়ক নিত্যনৈমিত্তিক অনেকে অজানা তথ্য আমাদের এই সাইটে আপনি পাবেন। নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের Facebook Page লাইক দিয়ে এক্টিভ থাকুন। সাইটের নিচের অংশে আমাদের ফেইসবুক পেইজ দেয়া আছে। সেখানে স্মার্টফোন সম্পর্কিত নিয়মিত নিত্যনতুন আরো অজানা তথ্য জানতে পারবেন।

Previous Post Next Post