src='https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js'/> Realme C20 Good or Bad Side||রিয়েলমি সি২০ ভালো ও মন্দ দিক

Realme C20 Good or Bad Side||রিয়েলমি সি২০ ভালো ও মন্দ দিক

সাম্প্রতিক আন্তর্জাতিক বাজারে চলে এসেছে Realme C20 স্মার্টফোনটি। আশাকরি খুব শীঘ্রই আমাদের দেশের বাজারে চলে আসবে। এই ফোনের স্পেসিফিকেশন হিসেবে যে দাম ধরা হয়েছে সেগুলো অনুযায়ী রিভিউ দেয়া হবে। আন্তর্জাতিক দামের সাথে আমাদের বাংলাদেশের দাম হিসেব করলে বাংলাদেশে আসার পর Realme C20 ফোনটির দাম হওয়ার কথা প্রায় ৮ হাজার ৯৯০ টাকা। যদি এর থেকে বেশি দামে আসে,তাহলে দেশের বাজারে দেশীয় ব্রান্ড সিম্ফনি, ওয়ালটনের ফোনই ভালো। আজকের আর্টিকেলে স্পেসিফিকেশন অনুযায়ী Realme C20 ফোনের ভালো মন্দ বিস্তারিত রিভিউ দেয়া হবে।

Realme c20
Realme C20 Review

Realme C20 ফোনটির মূল আকর্ষন হিসেবে যা যা থাকছেঃ
★ রেয়ার মাউন্টেইন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।
★ ওজনে অনেক কম।
★ এই বাজেটে মিডিয়াটেকের হিলিও জি৩৫ প্রসেসর। যা আগে কেউ দেয়নি।
★ বাজেট হিসেব করলে Realme C20 ডিজাইনিং অনেক প্রিমিয়াম।

Realme C20 ফোনটির নেগেটিভ দিক বিবেচনায় যেগুলা আসছেঃ
★ দাম তুলনামূলক অনেক বেশি রাখা হচ্ছে। তবে ব্রান্ড ভ্যালু হিসেবে ঠিক আছে।
★ সেলফি ক্যামেরা আরেকটু বেশি দেয়া যেত। সেলফি ক্যামেরা অন্তত ৮ মেগাপিক্সেল দেয়া উচিৎ ছিল।
★  বেক ক্যামেরা সেকশনে আরেকটু নজর দিলে ভালো হতো। প্রাইমারী ক্যামেরা ১৬ মেগাপিক্সেল দিলেও পারতো।
★ র‍্যাম আরেকটু বেশি দেয়া উচিৎ ছিল।

Realme C20 ফোনটি যাদের কেনা উচিতঃ যারা কম বাজেটে রিয়েলমির ফোন খুঁজছেন, তাদের জন্য এটিই সেরা চয়েজ। আসলে,এই বাজেটে মিডিয়াটেকের হিলিও জি৩৫ প্রসেসর অন্য কোন ব্রান্ড আপনাকে দিবেনা। পাশাপাশি এই ফোনের প্রসেসর যেহেতু ভালো,সেহেতু ক্যামেরা মেগাপিক্সেল কম হলেও, পারফরমেন্স ভালো হবে।

Realme C20 ফোনটি যাদের কেনা উচিত নয়ঃ যারা গেমিং করার জন্য ফোন কেনার কথা ভাবছেন, তারা এই ফোনটি এড়িয়ে যেতে পারেন। কারন এই ফোনের প্রসেসর ভালো হলেও ইন্টারনাল মেমোরি কম। যার কারনে কেউ যদি গেইমিং করার কথা চিন্তা করে Realme C20 ফোনটি কেনার কথা ভেবে থাকেন তাহলে না কেনায় ভালো হবে। তাছাড়া ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার যুগে এসে এই ফোনে দেয়া হয়েছে প্রাইমারি ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল। দূর্দান্ত ছবি তোলা বা ফটোগ্রাফি করার ইচ্ছা থাকলে আপনি এই ফোনটি না কেনাই ভালো। অন্যদিকে চিন্তা করলে,বাজেট ও ব্রান্ড বিবেচনা করলে ঠিক আছে।

আশাকরি আমাদের আজকের এই আর্টিকেল থেকে আপনার যে তথ্য জানার প্রয়োজন ছিল সেটি জানতে পেরেছেন। নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিয়ে এক্টিভ থাকুন। সাইটের নিচের অংশে আমাদের ফেইসবুক পেইজ দেয়া আছে। সেখানে স্মার্টফোন সম্পর্কিত আরো অজানা তথ্য জানতে পারবেন।


এটিই একমাত্র বাংলা মোবাইল রিভিউ ওয়েবসাইট। যেখানে বাংলায় মোবাইল ফোনের বিস্তারিত রিভিউ করা হয়। পাশাপাশি প্রতিটি রিভিউ শেষে আমাদের নিজস্ব কিছু মতামত থাকে। যেই মতামতের উপর ভিত্তি করে আপনাদের সিদ্ধান্ত নিতে সুবিধা হয়। আপনাদের সকলের সাপোর্ট,আমাদের জন্য অনুপ্রেরণার উৎস।
মোবাইল বিষয়ক উপরের সকল তথ্যের শতভাগ গ্যারান্টি বা নিশ্চয়তা দিচ্ছিনা কারন সকল তথ্য কোন কোন ওয়েবসাইট মাধ্যম বা সোর্স থেকে সংগ্রহীত হয়ে থাকে। তবে যখন কোন স্মার্টফোন ব্রান্ড বা প্রতিষ্ঠান আমাদেরকে রিভিউ ইউনিট দিয়ে থাকে, তখন সেইসকল রিভিউ শতভাগ নিশ্চয়তা দিতে পারি।

Previous Post Next Post