src='https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js'/> ব্লুটুথ চার্জারের সুবিধা ও অসুবিধা জানুন

ব্লুটুথ চার্জারের সুবিধা ও অসুবিধা জানুন

বর্তমানের অনেক আপগ্রেডেশন ভার্সন ফোনে নরমাল চার্জা দেয়া হয়না। সেখানে ব্লুটুথ চার্জার সিস্টেম দেয়া হচ্ছে। ব্লুটুথ চার্জার সিস্টেম ফোন বর্তমানে আমাদের কাছে নতুন কিন্তু খুব শীঘ্রই এটি পুরাতন হবে। যদিও ফোনের গেজেট আইটেমের ক্ষেত্রে ব্লুটুথ গেজেট আইটেম এখন পর্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠতে পারেনি।

Blotooth charger
Bloototh Charger

ব্লুটুথ চার্জারের সুবিধা ও অসুবিধা বলার ক্ষেত্রে প্রথমে যদি সুবিধা হিসেব করি, তাহলে বলতে হয় মোবাইল চার্জ দেয়ার ক্ষেত্রে চার্জারের কাছাকাছি রেখে চার্জ দেয়ার প্রয়োজন হয়না। চার্জার প্লাজ আলমারির পেছনে রেখে ফোন বিছানায় বা টেবিলে রেখে আপনি চার্জ দিতে পারবেন। এছাড়া আর তেমন কোন সুবিধা আপনি পাচ্ছেন না। অনেকের মতে ব্লুটুথ চার্জিং সিস্টেমে ফোন ফাস্ট চার্জিং হয়না। তাছাড়া ব্লুটুথ চার্জ মানেই এইনা যে,আপনি ফোন চার্জে লাগিয়ে ব্যাবহার করতে পারছেন। ব্লুটুথ চার্জিং সিস্টেমে আপনাকে ফোনটি একটি চার্জিং প্যাডের মধ্যে আপনার মোবাইলটি রেখে দিতে হবে। তার মানে ফোন চার্জ ও ব্যাবহার আপনি একইসাথে পারবেন না। যদিও কারো কারো মতে ব্লুটুথ চার্জিং সিস্টেমে ফোনের ব্যাটারির ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে,তবে এখন পর্যন্ত এই বিষয়টির সত্যতা পাওয়া যায়নি।

আশাকরি আমাদের আজকের এই আর্টিকেল থেকে আপনার যে তথ্য জানার প্রয়োজন ছিল সেটি জানতে পেরেছেন। স্মার্টফোন বিষয়ক আপনার অনেকে অজানা তথ্য আমাদের এই সাইটে আপনি পাবেন। নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের Facebook Page লাইক দিয়ে এক্টিভ থাকুন। সাইটের নিচের অংশে আমাদের ফেইসবুক পেইজ দেয়া আছে। সেখানে স্মার্টফোন সম্পর্কিত নিয়মিত নিত্যনতুন আরো অজানা তথ্য জানতে পারবেন।

Previous Post Next Post